সোমবার ১৭ ডিসেম্বর ২০১৮   |  ৩ পৌষ ১৪২৫   |   ৭ রবিউস সানি, ১৪৪০
Untitled Document

জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলা

খালেদা জিয়ার পক্ষে যুক্তিতর্ক শুনানি বৃহস্পতিবার

প্রকাশঃ বুধবার, ২০ ডিসেম্বর ২০১৭    ১৬:১৯
স্টাফ

জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার পক্ষে যুক্তিতর্ক শুনানি শুরুর পর বৃহস্পতিবারও তার পক্ষে যুক্তি তুলে ধরার সময় রাখা হয়েছে।

রাজধানীর বকশীবাজার আলিয়া মাদ্রাসা মাঠে স্থাপিত ঢাকার পঞ্চম বিশেষ আদালতের বিচারক ড. মো. আখতারুজ্জামানের আদালতে বুধবার সকাল সোয়া ১১টায় খালেদা জিয়ার পক্ষে যুক্তি উপস্থাপন শুরু করেন তার আইনজীবী আবদুর রেজাক খান।

দুপুর পৌনে ২টা পর্যন্ত যুক্তিতর্ক চলার পর তা মুলতবি করে পরেরদিন বৃহস্পতিবার সময় রাখেন বিচারক।

এর আগে খালেদা জিয়া সকাল ১১টার দিকে আদালতে পৌঁছেন।  

মঙ্গলবার রাষ্ট্রপক্ষে যুক্তিতর্ক উপস্থাপন শেষ হয়েছে। দুর্নীতি দমন কমিশনের প্রধান কৌঁসুলি মোশাররফ হোসেন কাজল এ মামলার অনুসন্ধান প্রতিবেদন ও এজাহার পড়ার মধ্য দিয়ে যুক্তি উপস্থাপন শুরু করেন। দুই ঘণ্টারও বেশি সময় শুনানি শেষে রাষ্ট্রপক্ষ মামলার প্রধান আসামি খালেদা জিয়াসহ সব আসামির সর্বোচ্চ শাস্তি যাবজ্জীবন কারাদণ্ড প্রার্থনা করেন। উভয় পক্ষের যুক্তিতর্ক উপস্থাপন শেষে রায় ঘোষণা করবেন বিচারক।  

তত্ত্বাবধায়ক সরকারের সময় ২০০৮ সালের ৩ জুলাই রমনা থানায় জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলা দায়ের করে দুদক। এতিমদের সহায়তা করার উদ্দেশ্যে একটি বিদেশি ব্যাংক থেকে আসা দুই কোটি ১০ লাখ ৭১ হাজার ৬৭১ টাকা আত্মসাৎ করার অভিযোগ এনে এ মামলা দায়ের করা হয়। তদন্ত শেষে ২০০৯ সালের ৫ আগস্ট তদন্ত কর্মকর্তা আদালতে অভিযোগপত্র দাখিল করেন। এরপর ২০১৪ সালের ১৯ মার্চ ঢাকার তৃতীয় বিশেষ জজ অভিযোগ গঠন করে খালেদা জিয়াসহ ছয় আসামির বিচার শুরু করেন। 

মামলায় খালেদা জিয়াসহ আসামি ছয়জন। অপর পাঁচ আসামি হলেন, খালেদার বড় ছেলে তারেক রহমান, মাগুরার সাবেক এমপি কাজী সালিমুল হক কামাল ওরফে ইকোনো কামাল, ব্যবসায়ী শরফুদ্দিন আহমেদ, প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের সাবেক সচিব ড. কামাল উদ্দিন সিদ্দিকী ও প্রয়াত রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের ভাগ্নে মোমিনুর রহমান। আসামিদের মধ্যে ড. কামাল সিদ্দিকী ও মোমিনুর রহমান মামলার শুরু থেকেই পলাতক। তারেক রহমান নয় বছর ধরে লন্ডনে রয়েছেন। এ মামলায় তার বিরুদ্ধে আদালতে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি রয়েছে। বাকিরা জামিনে আছেন। 

আর্কাইভ
December 2018
SunMonTueWedThuFriSat
1

2

3

4

5

6

7

8

9

10

11

12

13

14

15

16

17

18

19

20

21

22

23

24

25

26

27

28

29

30

31

প্রকাশক

বিপ্লব চন্দ্র চক্রবর্তী

ভারপ্রাপ্ত প্রকাশক

মাকসুদুল বারী স্বপন

আমাদের সাথে থাকুন
© Copyright 2017. GEE BD. Designed and Developed by GEE IT
সদ্য সংবাদ